7 amazing magics, that can impress you friends


সাহেব থেকে বিবি

আপনি মঞ্চে দাঁড়িয়ে এক প্যাকেট তাস নিয়ে সাফ করতে করতে উপস্থিত দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলবেন---আমি আপনাদের যে খেলাটি দেখাব, তা হল—সাহেব। কেমন করে বিবি হয়ে যায়।। 

কথাটা শুনে সকলেই অবাক হয়ে যাবেন কিন্তু হ্যা, এটাই যাদুকরের চালাকি। প্যাকেটের মধ্যে থেকে একটা সাহেব বার করে দর্শকদের দেখিয়ে এবং জিজ্ঞাসা করুন—এটা কি? সকলেই উত্তর দেবেন ওটা একটা সাহেব। 

এবার আপনি বলবেন-দেখুন, এই সাহেব কেমন করে বিবি হয়ে যাচ্ছে। এই বলে তাসটি বাঁ হাতে ধরে ডান হাতে দিয়ে ওই তাসটির ওপর হাত বুলাতে বুলােতে। মুখে বিড় বিড় করতে থাকুন। দর্শকরা মনে করবেন যে, আপনি মন্ত্র বলে কাজটি করছেন। এরপর তাসটি নিয়ে উপস্থিত দর্শকদের দেখান। তারা বিবি দেখে অবাক হবেন এবং হাততালি দিয়ে উঠবেন। * 

এবার এটি কেমন করে সম্ভব হল, তা দেখুন—এখানে মন্ত্র বা অলৌকিক কিছু। নেলসটিতে একটা চালাকি করা আছে। দুটো তাসকে কিছুক্ষণ জলে ভিজিয়ে যখন নরম হয়ে যাবে, তখন তাস দুটির কোণের দিক থেকে ছাড়িয়ে দুভাগ করে নিন। ফলে নর দিকে ছবি দুটি থেকে যাবে আর পিছনের অংশটি সাদা রয়ে যাবে।

 ১নং-টি হল তাসের সামনের দিক। এবং ২নং-টি হল তাসের পিছনের দিক। 

এবার ওই ভিজে ছবিওয়ালা তাস দুটি কোণাকুণিভাবে কেটে বিবির ওপর সাহেবের, ছবিটি আটকে একটা ভারি কিছু চাপা দিয়ে ভালভাবে শুকিয়ে নিন। ভারি বস্তু চাপা দিলে তাসটি বেঁকে যাবে না। এমনভাবে তাস দুটি একে অপরের সাথে আটকাবেন, খেলা দেকানাের সময় যখন তাসের ওপর হাত চালাবেন, তখন সাহেবটি এমন কৌশলে হাতের ফাঁকে চলে আসবে, দর্শক বৃন্দ সাহেবের বদলে বিবিকে দেখে দারুণ অলৌকিক ব্যাপার ভেবে হাততালি দিয়ে উঠবে।

বেগমকে বাদশা এবং বাদশাকে বেগম দেওয়া 

 তাসের যাদুর মধ্যে এই খেলাটিও যথেষ্ট জনপ্রিয়।। মঞ্চে দাঁড়িয়ে আপনি উপস্থিত দর্শকদের উদ্দেশ্যে হয়তাে, বললেন—আমি এখন যে খেলাটি আপনাদের দেখাব, সেটি হয়তাে আপনারা অনেকেই দেখে থাকবেন। যদি দেখে থাকেন, তবে খেলাটি আমি আপনাদের দেখাবাে। খেলাটি হল—বেগম পাবে তার বাদশাকে আর বাদশাও পাবে বেগমকে। 

এবার আপনি বাদশা এবং বেগমের দুটি তাস পাশাপাশি হাতে ধরে দর্শকদের। দেখিয়ে নিন। এরপর দুটো তাস একসঙ্গে করে নানা কথার ফাকে দর্শকদের কিছুক্ষণ ভুলিয়ে রাখুন। এবার আপনার ছড়ি অর্থাৎ দর্শকরা যেটাকে যাদুদণ্ড বলে মনে করে, সেটিকে ওই তাস দুটির ওপর বারকয়েক ঘােরাতে ঘােরাতে মুখে বিড়বিড় করে কিছু বলতে থাকুন। যা দেখে দর্শকরা ভাববে, আপনি হয়তাে মন্ত্র পড়ছেন। মন্ত্রপড়া শেষ করে দু-একটি কথা বলার-পর পুনরায় তাস দুটি দর্শকদের দেখান। দর্শকরা দেখতে পাবে, সাহেবের তাসটি সাদা হয়ে গেছে এবং সাহেব বিবির তাসের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। খেলাটি দেখে দর্শকবৃন্দ বিস্ময়ে অভিভূত হয়ে। হাততালি দিয়ে উঠবে।

এবার বুঝে নিন খেলাটি কিভাবে দেখানাে হচ্ছে— 
দুটি একই রঙের সাহেব এবং বিবি নিয়ে কিছুক্ষণ জলে ভিজিয়ে রাখুন। তাস দটি ভিজে ফুলে উঠলে, ১নং চিত্রের মতাে দু’ভাগ করে ছাড়িয়ে নিন। এবার বিবি এবং সাহেবের ছবি দুটি মাঝের দিকে দাগ অনুযায়ী কেটে নিন।)।

 এবার বিবি এবং সাহেবের কেটে নেওয়া ছবি দুটি তাসের পিছনদিকের ছাড়ানাে সাদা অংশে লেই দিয়ে চিত্রের মত করে আটকে দিন। এরপর আরও একটি একই রঙের সাহেব জলে ভিজিয়ে সাহেবের অংশটি ছাড়িয়ে নিন। এতে সাহেবের পিছনের অংশ সাদা থাকবে।

এখন মঞ্চে খেলা দেখাবার সময় ওই সাহেবটি এবং আপনার তৈরী করা তাসটি এমনভাবে দর্শকদের দেখিয়ে নেবেন যে, তারা সাহেব এবং বিবিটিকে দেখতে পাবে, কিন্তু বিবির নিচের দিকে সাহেবের জোড়া অংশটি তারা দেখতে পাবে না। সেটি আপনার হাতের আঙুলের ফাকে চাপা পড়ে থাকবে। তারপর যাদুদণ্ড ঘুরিয়ে মন্ত্র। পাঠের পর দু-চার কথায় দর্শকদের ভুলিয়ে রাখবেন, সেই সময় কৌশলে সাহেবের ছবির দিকটি আপনার দিকে ঘুরিয়ে সাদা অংশটি দর্শকদের দিকে দেখাবেন। দর্শকরাও দেখবে সাহেবের তাসটি সাদা এবং সাহেব বিবির তাসের সঙ্গে এসে যুক্ত হয়েছে
 এই খেলাটি দেখে দর্শকরা খুবই আনন্দ পাবে।

 কৰ্পর বৃক্ষ। 

 একটি পাত্রে খানিকটা স্পিরিট নিয়ে তাতে কপূর মিশ্রিত কর। যতক্ষণ পর্যন্ত কপূর। মিশ্রিত না হয়, ততক্ষণ তাতে কপূর মেশাতে থাক। যখন দেখা যাবে যে, স্পিরিটে আর! কপুর মেশানাে যাচ্ছে না, তখন আর কুৰ্পর না দিয়ে ওই কপূর মিশ্রিত স্পিরিট অপর। একটি গ্লাসে ঢালতে থাক। দেখবে ঢালবার সঙ্গে সঙ্গে বৃক্ষের ন্যায় আকার ধারণ করছে।

 অদ্ভুত আগুন। 

একটি কাচের পাত্রে প্রথমে ১ ভাগ ক্লোরেট অফ পটাশ এবং ১ প্রেন পরিমাণ সালফিউরিক অ্যাসিড একত্রে মিশ্রিত করে জল দিয়ে উত্তমরূপে নেড়ে নেবে। এরপর উক্ত দ্রব্যে। সমপরিমাণ কিছু চিনি দিলেই একপ্রকার আগুন জ্বলতে থাকবে।

ভুতুড়ে সংকেত। 

বেশ কিছু কাগজের টুকরাে হাতে নিয়ে মঞ্চে প্রবেশ করে দর্শকদের বলবে, তারা তাদের পছন্দমত এক-একটি মৃত অথবা জীবন্ত ব্যক্তির নাম বলতে। তারা যখন এক-একজনের নাম বলতে থাকবে, তুমি কাগজের টুকরােগুলিতে সেই নামগুলি লেখার ছলে তােমার। নিজের পছন্দমতাে যে কোনাে একজনের নামই লিখতে থাকবে। যেমন ধরা যাক— প্রত্যেক কাগজে তুমি জহরলাল নেহরুর নামই লিখেছে। এবার যে কোনাে একজন দর্শককে যে কোনাে একটা কাগজ তুলে দেখে এবং পাশাপাশি কয়েকজনকে দেখিয়ে তার কাছেই রাখতে বলবে এবং যেন সেই নামটি তােমার কাছে প্রকাশ না করে, সে । ' কথাও হয়ে দেবে। বাকী কাগজগুলি দেশলাই জ্বেলে আগুন দিয়ে তুমি গ্রনরুমে। চলে গেলে। যাবার সময় জানিয়ে যাবে—কাগজগুলি পুড়ে ছাই হয়ে গেলে তােমাকে যেন খবর দেওয়া হয়। এরপর গ্রনরুমে ঢুকেই তমি রবার সলিউশন দিয়ে ওই জওহরলাল নেহরু নামটি। হাতে লিখে নিলে। কাগজগুলি পুড়ে ছাই হয়ে যাবার মধ্যেই তােমার হাতের ওই লেখা। শুকিয়ে যাবে এবং ওটি জলীয় ধরনের হওয়ার ফলে দর্শকের নজরে আসবে না তােমাকে খবর দিলে তুমি মঞ্চে এসে ওই পােড়াে কাগজের ছাই নিয়ে হাতে ঘষতে থাকলে কালাে রঙের অক্ষরে নামটি হাতে ফুটে উঠবে। দর্শকেরা তাই দেখে অব। হয়ে যাবেন। 

হাতে জল লাগে না 

এমন একটা পাত্র নেবে, যাতে সামান্য কিছু জল ধরে। এরপর তাতে এক টাকার একটা কয়েন ফেলে দিয়ে দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলবে—আপনাদের মধ্যে যে কেউ এই টাকাটা। তুলে নিতে পারেন। কিন্তু যার হাতে জল লাগবে না, সেই একমাত্র টাকাটা পাবেন; তা 2 না হলে পাবেন না। একথা শুনে দর্শকেরা হয়তাে অবাক হয়ে বলবেন---জলের মধ্যে থেকে টাকা তুলবে অথচ হাতে জল লাগবে না, এ কেমন কথা! আপনি নিজে তা পারবেন? দর্শকদের এ কথা উত্তরে তুমি বলবে—হ্যা, নিশ্চয়ই পারবাে। এই বলে তুমি কিছুটা লাইকোপােডিয়াম্ গুঁড়াে হাতে মাখাবে এবং সবার অলক্ষ্যে কিছু গুঁড়াে ওই পাত্রের জলে ফেলে দেবে। এরপর টাকাটা তুলে নিলে হাতে জল লাগবে না।। 

ভূতুড়ে প্রদীপ। 

  বিনা তেলে প্রদীপ জ্বালানাের এই খেলাটি বেশ মজার। যতগুলি প্রদীপ লাবার প্রয়ােজন হবে, ততগুলি কেঁচো যােগাড় করে রােদে ভালভাবে শুকিয়ে নেবে। এরপর ন্যাকড়ার এক-একটি পতে তৈরী করে তার মধ্যে এক-একটি কেঁচো ভরে পাকিয়ে নিয়ে প্রদীপ জ্বালালে, তা জ্বলতে থাকবে।

Post a Comment

0 Comments