Magician Dress up and Essential products

যাদুকরের প্রয়ােজনীয় দ্রব্যাদি 

তাসের যাদু প্রদর্শন করতে হলে যে সমস্ত সরঞ্জামের প্রয়ােজন, তা নিচে দেওয়া হল-

১। এক প্যাকেট তাস
২। একটা কাঠের তৈরী টেবিল।
৩। টেবিলে চাপা দেবার জন্য কালাে রঙের কাপড়।
৪। কাঠের অথবা প্লাষ্টিকের একটা উঁচু বাক্স।।
৫। আধ মিটার সাইজের কালাে কাপড়ের রুমাল।
৬। একটা থালা, কাঁচের গ্লাস এবং কাচের বাটি।
৭। একটা লাঠি, যা যাদুদণ্ডের মত কাজ করবে।
৮। ক্রিকেট ব্যাট, কাগজের বাক্স ইত্যাদি।

যাদুকরের বেশভূষা এবং বচন ভঙ্গী

 আধুনিক যুগে যাদুবিদ্যা প্রদর্শনের ক্ষেত্রে নিজের বেশভূষার প্রতিও নজর রাখতে হবে।। যাদুকরের পােষাক এমনই হওয়া উচিৎ, যাতে তাকে একজন বেশ প্রভাবশাল।। ব্যক্তি বলে মনে হতে পারে। তা যদি না হয়, তবে উপস্থিত দর্শকমণ্ডলীদের কাছে। নিজের প্রভাব বিস্তার করতে অসুবিধে হবে। এই কারণে যার পােষাকে যত চাকচিক্য থাকবে, দর্শকমণ্ডলীও ততই সেই পােশাকের প্রতি আকৃষ্ট হবে

 এইরূপ পােশাক পরিহিত অবস্থায় যাদু প্রদর্শনের জন্য যখন আপনি স্টেজে এসে উপস্থিত হবেন, তখন যেন আপনাকে দেখে উপস্থিত দর্শকদের মনে হয়—আপনি একজন বেশ বড় যাদুকর এবং আপনি এক বিশেষ জগতের মানুষ।

 এখন প্রশ্ন উঠতে পারে—যাদুকরের পােষাক কি ধরণের হওয়া উচিৎ। আপনার পােষাক হবে সম্পূর্ণ কালাে রঙের। পরণের কালাে রঙের কোটের বাঁ দিকে বুকের কাছে লাল রঙের একটা বিপদচিহ্ন আঁকা থাকবে। কোমরে আঁটা থাকবে একটা কালাে। রঙের নাইট বেল্ট। এই কোট ও পরণের প্যান্টের মধ্যে থাকবে ছােট ছােট অনেকগুলি চোরা পকেট। এই পকেটগুলি তাসের যাদু প্রদর্শনের সময় বিভিন্নভাবে সাফাইয়ের। কাজে লাগে। মাথায় থাকবে একটা টুপি, এছাড়া হাতে থাকবে একটা ছডি, যা । যাদুদণ্ডের মত মনে হবে।

 এবার আপনি এমনভাবে মঞ্চে উপস্থিত হবেন যে, আপনার ব্যক্তিত্বপূর্ণ পদক্ষেপ এবং পােষাকে আকৃষ্ট হয়ে দর্শক-সাধারণ হাততালি দিয়ে উঠবে। তাছাড়া যাদুবিদ্যার। প্রতি আপনার যে যথেষ্ট প্রভাব আছে, তা আপনাকে দেখেই দর্শকবৃন্দ মনে মনে। অনুভব করতে থাকবেন।

এবার আপনার কথা বলার ভঙ্গী সম্বন্ধে কিছু আলােচনা করা হচ্ছে। একটা কথা। বিশেষভাবে মনে রাখবেন--আপিন যেখান থেকে খেলা দেখাবেন, সেখান থেকে। দর্শকদের আসন যেন কমপক্ষে প্রায় দশ গজের মত দূরে থাকে। তা না হলে দর্শকদের। চোখে তাসের যাদুর ফাকি ধরা পড়ে যেতে পারে।

মঞ্চে উপস্থিত হয়ে এবার আপনাকে দর্শকদের কথার জালে ভুলিয়ে রাখতে হবে।। আপনার কথা বলার ভঙ্গী হবে খুব স্বতন্ত্র, তাড়াতাড়ি এবং এমনভাবে বলতে হবে । যাতে দর্শকরা আনন্দ পায়। আপনার কথা বলার ধরণ কেমন হবে, নীচে তার একটা নমুনা দেওয়া হল-

মঞ্চে এসে আপনি দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলতে শুরু করবেন—উপস্থিত দর্শকবৃন্দ! আমার বন্ধু, হিতৈষী, শত্রু, মিত্র যে যেখানে আছেন, সবাইকে আমার নমস্কার- নমস্কার-নমস্কার!

 আমি জানি, আপনার সকলে কি জন্য এখানে উপস্থিত হয়েছেন। আমি একজন যাদুকর, যাদুবিদ্যাই আমার পেশা। আমার এই তাসের যাদু খেলা দেখে আপনারা কিছু সময়ের জন্য মনে আনন্দ উপভােগ করতে এসেছেন। তাই বলে আপনারা এটা কিন্তু ভাববেন না যে, আমি কোন পার-পয়গম্বর দেবতা বা ভগবান; না, আমি এর কোনটাই নই। আমি আপনাদের মতই একজন সাধারণ মানুষ। তবে আপনাদের সঙ্গে আমার কিছুটা তফাৎ নিশ্চয়ই আছে; আর তা হল—আপনারা দর্শক, তামাশা দেখে আপনার আনন্দ উপভােগ করতে এসেছেন। আর আমি একজন যাদুকর; তামাশা দেখিয়ে আপনাদের আনন্দ দিতে এসেছি।

আপনারা জানেন--মানুষের জীবনটা বড় নীরস। তাই মাঝে মাঝে আনন্দরসের ঝুলি ভরতে মানুষ বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ায়। আজও আপনারা এখানে এসেছেন আপনাদের আনন্দরসের ঝােলা ভর্তি করতে। তাই আমি সাধ্যমত চেষ্টা করব আপনাদের ওই ঝােলাগুলাে ভর্তি করতে। 

এবার আসুন, আমি যা দেখব এবং আপনারা যা দেখবেন—এ সবই আমার বুদ্ধির কৌশল। সুতরাং হিন্দুদের আমার প্রণাম, মুসলিমদের আমার সেলাম, পাঞ্জাবীদের জন্য আমার সত্য অকাল, এবার সকলে দেখুন আমার কামাল, আমি কাপড় ছিড়ে বানিয়ে দেব রুমাল।

 এইপ্রকার কথাবার্তার মধ্যে মানুষের মনকে বিশেষভাবে আকৃষ্ট করে রাখতে হবে। প্রয়ােজন হলে দু'একটা ছােট ছােট গল্প বা হাসির জোকও ব্যবহার করা যেতে পারে। যাতে মানুষের মনকে হাসি-আনন্দের মধ্যে দিয়ে আরও বেশী করে আকৃষ্ট রাখতে পারা যায়।।

তবে এর সঙ্গে যাদুকরকে আরও একটা কথা মনে রাখা দরকার—যখন আপনি আপনার কথাগুলি বলতে থাকবেন, তখন আপনি আপনার হাতের তাসগুলি প্রায়শই ফাটাতে বা সাফল করতে থাকবেন। এটি করতে হবে খুব তাড়াতাড়ি, কারণ তাড়াতাড়ি। তাস ফাটানাে বা সাফ করার সঙ্গে একজন যাদুকরের ব্যক্তিত্বের এক বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। যদি আপনি এই তাড়াতাড়ি করার কাজটুকু ঠিকমত আয়ত্ব করতে না পারেন, তবে আপনি একজন সফল যাদুকরের ভূমিকা থেকে বঞ্চিত হতে পারেন।

 সুতরাং, এই কারণে তাড়াতাড়ি তাস সাফ করা বা ফাটানাের কাজটি ভালভাবে রপ্ত করতে হবে, যাতে এই সময় আপনার হাত থেকে কোনাে তাস মাটিতে পড়ে না। যায়। এই কাজটি অভ্যাসের ফলে যাদুকরের হাত সাফাইয়ের ব্যাপারটি ভালভাবে রপ্ত । হয়ে যায়।।

Post a Comment

0 Comments